Bengali Sermon Series | “উন্নীত হওয়া” মানে আসলে কী?

12-12-2022

অন্তিম সময়ে, সমস্ত বিশ্বাসীরা আকুল হয়ে উঠেছে ত্রাণকর্তা মেঘারুঢ় হয়ে এসে তাদের উন্নীত করে উপরে নিয়ে যাবেন তাঁর সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য। কিন্তু এখন যে মহা বিপর্যয় ঘটেছে, মেঘারুঢ় হয়ে প্রত্যাবর্তন করা প্রভুকে তারা এখনও স্বাগত জানাতে পারেনি। মানুষ ভীত বা এমনকি হয়ত প্রভুর দ্বারা পরিত্যক্ত বোধ করছে, তাদের মনে হচ্ছে তারা যে কোনও মুহূর্তে বিপর্যয়ে মারা যেতে পারে। এটা তাদের কাছে আশ্চর্যজনক যে পূর্বের বজ্রালোক সাক্ষ্য দিচ্ছে যে প্রভু যীশু ইতিমধ্যেই সর্বশক্তিমান ঈশ্বরের অবতার হিসাবে প্রত্যাবর্তন করেছেন, সত্য ব্যক্ত করেছেন এবং অন্তিম সময়ে বিচারকার্য করছেন। অনেকে যারা সত্যের জন্য আকাঙ্ক্ষা করে সর্বশক্তিমান ঈশ্বরের বাণী পড়ে, ঈশ্বরের কণ্ঠস্বরকে চিনতে পারে এবং সর্বশক্তিমান ঈশ্বরের দিকে চলে যায়। তারা প্রতিদিন ঈশ্বরের বাক্য ভোজন ও পান করছে, তাদের দ্বারা পুষ্ট এবং লালিতপালিত হচ্ছে, এবং মেষশাবকের বিবাহের ভোজে যোগদান করছে। এরাই তারা যারা বিপর্যয়ের আগে ঈশ্বরের সিংহাসনের সামনে উন্নীত হয়েছে। অনেক ধার্মিক মানুষ বিভ্রান্ত, এই ভেবে যে, “প্রভু যীশুর কথা না মানুষকে তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করার জন্য আকাশে নিয়ে যাওয়ার? পূর্বের বজ্রালোক বিশ্বাসীরা স্পষ্টতই পৃথিবীতে এখনও আছে, তাহলে তারা কীভাবে উন্নীত হতে পারে?” অনেক লোক উন্নীত হওয়ার প্রকৃত অর্থ বোঝে না, উল্টে মনে করে এর অর্থ আকাশে নিয়ে যাওয়া, তাই পৃথিবীতে এখনও যারা আছে, তারা কেউ উন্নীত হয়নি। এটা কি সঠিক? “উন্নীত হওয়া” বলতে আসলে কী বোঝায়? প্রকৃত বিশ্বাসের সন্ধানে-র এই পর্বটা আপনাকে সত্য সন্ধান করার এবং উত্তর খুঁজে পাওয়ার পথ দেখাবে।

আরও দেখুন

প্রতিদিন আমাদের কাছে 24 ঘণ্টা বা 1440 মিনিট সময় থাকে। আপনি কি ঈশ্বরের সান্নিধ্য লাভের জন্য তাঁর বাক্য শিখতে 10 মিনিট সময় দিতে ইচ্ছুক? শিখতে আমাদের ফেলোশিপে যোগ দিন। কোন ফি লাগবে না।👇

শেয়ার করুন

বাতিল করুন

Messenger-এর মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন