খ্রিষ্টীয় সঙ্গীত | ঈশ্বর মানবজাতির ভবিষ্যৎ নিয়ে বিলাপ করেন

06-07-2022

এই বিশাল জগতে, অবিরাম মহাসমুদ্রের পলি জমে মাটি তৈরি হচ্ছে,

আর মাটি ভেসে গিয়ে মহাসমুদ্রে ডুবে যাচ্ছে।

সবকিছু যাঁর শাসনে চলে, সেই পরমাত্মা ছাড়া আর কেউ

এই মানবজাতিকে নেতৃত্ব দিতে ও দিশা দেখাতে পারে না।

এমন সর্বশক্তিমান কেউ নেই যে এই মানবজাতির জন্য

কষ্ট করতে বা প্রস্তুতি নিতে পারবে।

এই মানবজাতিকে নেতৃত্ব দিয়ে

আলোকিত গন্তব্যের দিকে নিয়ে যেতে পারবে এবং জাগতিক অন্যায় থেকে মুক্ত করতে পারবে,

এমন অন্য কেউ থাকার সম্ভাবনা তো আরও কম।

ঈশ্বর মানবজাতির ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে শোকার্ত হন,

তিনি মানব জাতির অধঃপতন নিয়ে দুঃখ পান, আর ব্যথাতুর হন এই দেখে যে,

মানব জাতি ধাপে ধাপে এমন ধ্বংসের পথে এগিয়ে চলেছে,

যেখান থেকে আর ফিরে আসার পথ নেই।

কেউ কখনও ভেবে দেখে নি যে এই মানবজাতি,

যে ঈশ্বরকে কষ্ট দিয়ে, তাঁকে পরিত্যাগ করে, মন্দের প্রতি আকৃষ্ট হয়েছে,

সে আসলে কোন দিকে এগিয়ে চলেছে।

ঠিক এই কারণেই কেউই ঈশ্বরের আক্রোশকে অনুভব করতে পারে না,

ঈশ্বরকে সন্তুষ্ট করার পথ খোঁজার,

বা তাঁর কাছে যাওয়ার চেষ্টা করে না,

আর সবচেয়ে বড় কথা হল, এই কারণেই কেউ ঈশ্বরের কষ্ট ও বেদনা অনুধাবন করার চেষ্টাও করে না।

এমনকি ঈশ্বরের বাক্য শোনার পরও, মানুষ তার নিজের পথেই চলতে থাকে,

ঈশ্বরকে এড়িয়ে চলতে চায়, ঈশ্বরের অনুগ্রহ ও যত্ন পরিহার করে,

আর তাঁর সত্যের থেকে দূরে সরে গিয়ে নিজেকে

ঈশ্বরের শত্রু শয়তানের কাছে বিক্রি করে দিতে বেশী পছন্দ করে।

কেউ কি চিন্তা করেছে—যদি মানুষ তার একগুঁয়েমি বজায় রাখে—

তাহলে সেই মানবজাতির প্রতি ঈশ্বর কেমন আচরণ করবেন,

যে একবারও পিছনে না তাকিয়ে তাঁকে খারিজ করেছে?

কেউ জানে না যে ঈশ্বর বারবার মানুষকে

স্মরণ করিয়ে দেন এবং উপদেশ দেন,

কারণ তিনি নিজের হাতে এমন এক বিপর্যয় প্রস্তুত করে রেখেছেন

যেমনটা আগে কখনও হয়নি,

তিনি নিজের হাতে এমন এক বিপর্যয় প্রস্তুত করে রেখেছেন যেমনটা আগে কখনও হয়নি,

এমন এক দুর্যোগ যা মানুষের দেহ ও আত্মার পক্ষে অসহনীয় হবে।

এই বিপর্যয় কেবল দেহের জন্য নয়, আত্মার জন্যও শাস্তিস্বরূপ।

তোমাকে জানতে হবে: ঈশ্বরের পরিকল্পনা ভেঙে গেলে,

তাঁর মনে করানোর প্রচেষ্টা ও উপদেশ নিষ্ফল হলে,

তাঁর ক্রোধের আগুন কীভাবে জ্বলে উঠবে?

স্রষ্টার সৃষ্ট কোনো জীবের দর্শন বা শ্রবণ অভিজ্ঞতায়

যা পূর্বে কখনো অনুভূত হয়নি।

আর তাই বলছি, যে এই বিপর্যয় অভূতপূর্ব,

এবং এর পুনরাবৃত্তি আর কখনও ঘটবে না।

কেননা ঈশ্বরের পরিকল্পনা হল মানবজাতিকে কেবল একবারের জন্য সৃষ্টি করা আর

তাদেরকে তিনি কেবল একবারই রক্ষা করবেন।

এটাই প্রথমবার, আর এটাই শেষ।

তাই, ঈশ্বর এবার যে কতটা শ্রমসাধ্য অভিপ্রায় এবং

ঐকান্তিক প্রত্যাশা সহকারে মানবজাতিকে রক্ষা করছেন

সেটা কেউ অনুমান করতে পারে না।

কেউ অনুমান করতে পারে না

ঈশ্বরের শ্রমসাধ্য অভিপ্রায় এবং ঐকান্তিক প্রত্যাশা,

ঈশ্বরের শ্রমসাধ্য অভিপ্রায় এবং ঐকান্তিক প্রত্যাশা।

মেষশাবককে অনুসরণ করুন ও নতুন গীত গান থেকে

আরও দেখুন

প্রতিদিন আমাদের কাছে 24 ঘণ্টা বা 1440 মিনিট সময় থাকে। আপনি কি ঈশ্বরের সান্নিধ্য লাভের জন্য তাঁর বাক্য শিখতে 10 মিনিট সময় দিতে ইচ্ছুক? অনুগ্রহ করে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। 😊

শেয়ার করুন

বাতিল করুন

Messenger-এর মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন