অধ্যায় ৭৬

আমার সমস্ত কথনই হল আমার ইচ্ছার অভিব্যক্তি। আমার যে দায়ভার আছে তার প্রতি সহানুভূতিশীল কে হবে? কে বুঝবে আমার উদ্দেশ্য? আমি তোমাদের সামনে যে প্রশ্নগুলো রেখেছি তোমরা কি সেগুলোর প্রত্যেকটা বিবেচনা করে দেখেছ? এমন উদাসীনতা! তোমরা কোন সাহসে আমার সমস্ত পরিকল্পনাগুলোতে বাধা সৃষ্টি করো? তোমরা হাতের বাইরে চলে গেছো! যদি এই ধরণের অশুভ আত্মাদের কাজকর্ম অব্যাহত থাকে তাহলে আমি তাদের এখুনি মৃত্যুর অতল গর্ভে ছুঁড়ে ফেলে দেব! আমি অনেকদিন ধরেই অশুভ আত্মাদের বিভিন্ন কাজকর্ম স্পষ্টভাবে দেখতে পাচ্ছি। আর অশুভ আত্মাদের (যাদের কোনও অসৎ উদ্দেশ্য আছে, যারা জৈবিক চাহিদা আর ধনসম্পত্তির কামনা করে, যারা আত্মপ্রশংসায় মগ্ন, যারা গীর্জার কাজ ব্যাহত করে) দ্বারা ব্যবহৃত মানুষদের প্রত্যেকের ওপরই আমার নজর আছে। এটা মনে কোরো না যে অশুভ আত্মাদের তাড়িয়ে দিলেই সবকিছুর অবসান ঘটবে। তাহলে আমি তোমাদের বলি! এখন থেকে আমি এই সমস্ত মানুষগুলোকে একে একে বর্জন করব, আর কখনও তাদের ব্যবহার করব না! অর্থাৎ, অশুভ আত্মার দ্বারা ভ্রষ্ট কোনও ব্যক্তি আর আমার কাজে আসবে না, এবং তাদেরকে পদাঘাত করে বিতাড়িত করা হবে। এটা ভেবো না যে আমার কোনও অনুভূতি নেই। এটা জেনে রাখো! আমিই হলাম পবিত্র ঈশ্বর, এবং আমি একটা অপবিত্র মন্দিরে বসবাস করব না! আমি কেবলমাত্র সৎ এবং জ্ঞানী ব্যক্তিদেরই ব্যবহার করি যারা সম্পূর্ণরূপে আমার প্রতি অনুগত এবং যারা আমার দায়ভার সম্বন্ধে সহানুভূতিশীল। কারণ, এই ধরনের ব্যক্তিরা আমারই দ্বারা পূর্বনির্ধারিত হয়েছিল, আর নিশ্চিতরূপে তাদের মধ্যে কোনও অশুভ আত্মা কোনোরকমভাবে কার্যকর নয়। আমি একটা কথা স্পষ্ট করে দিই: এখন থেকে, পবিত্র আত্মার প্রভাব ব্যতীত সকলেই অশুভ আত্মার দ্বারা প্রভাবিত। আমি আরও একবার বলি: আমি এমন একজনকেও চাই না যার উপর অশুভ আত্মা কাজ করে। তাদের সকলকে তাদের জৈবদেহের সাথে মৃতস্থানে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া হবে!

অতীতে তোমাদের প্রতি আমার প্রয়োজনীয়তাগুলো কিছুটা হাল্কা ছিল, এবং জৈবিক চাহিদার ক্ষেত্রে তোমরা বরাবরই অসৎ। আজ থেকে আমি আর তোমাদের এভাবে চলতে দেব না। যদি তোমাদের কথা আর কাজ সর্বতোভাবে আমাকে প্রকাশ না করে, অথবা সেগুলো আমার অনুরূপতা থেকে সামান্য হলেও ভিন্ন হয় তাহলে আমি তোমাদের একেবারেই সহজে ছেড়ে দেব না। অন্যথায় তোমরা সবসময় হাসি-ঠাট্টা করবে, কোনওরকম সংযম ছাড়াই মাথা নাড়িয়ে হাসবে। তুমি যখন কোনও ভুল করো তখন কি তুমি অনুভব করো না যে আমি তোমাকে পরিত্যাগ করেছি? যখন তা জানোই, তাহলে তুমি এখনও এত অসৎ কেন? তুমি কি আমার বিচারের হাতের স্পর্শের জন্য অপেক্ষা করছ? আজ থেকে, যে এমনকি এক মুহূর্তের জন্যও আমার অভিপ্রায়ের সঙ্গে সঙ্গত হয়ে না চলবে তাকে আমি তৎক্ষণাৎ শাস্তি দেব। যদি সবাই মিলে একসাথে বসে গল্পগুজব করো, তাহলে আমি তোমাকে ছেড়ে চলে যাব। তোমরা আধ্যাত্মিক রসদ না যোগাতে পারলে কোনও কথা বোলো না। আমি তোমাদের দমন করার জন্য এগুলো বলছি না, তবে আমি যেটা বলতে চাইছি সেটা হল যেহেতু আমার কাজ এতদূর পর্যন্ত এগিয়ে গেছে, তাই আমি আমার পরিকল্পনা অনুসারেই চালিয়ে যাব। তোমরা যদি সবাই মিলে একসাথে বসে জীবনের আধ্যাত্মিক বিষয়গুলো নিয়ে একে অপরের সাথে কথা বলো তাহলে আমি অবশ্যই তোমাদের সাথে থাকব। আমি তোমাদের কারো সাথে অন্যায় আচরণ করব না। তুমি যদি মুখ খোলো, তাহলে আমি তোমাকে উপযুক্ত শব্দ প্রদান করব। তোমদের অবশ্যই আমার কথার মধ্যে থেকে আমার হৃদয়ের প্রশংসা করতে হবে। আমি তোমাদের বোবা হয়ে থাকার অভিনয় করতে বলছি না, এবং তোমাদেরকে ছোট ছোট কথাবার্তায় জড়িত হতেও বলছি না।

কেন আমি বারবার বলতে থাকি যে খুব বেশি সময় বাকি নেই, এবং আমার দিন আসতে দেরি হওয়া উচিত নয়? তোমরা কি এই বিষয়ে মনোযোগ সহকারে চিন্তাভাবনা করেছো? তোমরা কি সত্যিই আমার কথার অর্থ বুঝতে পারো? অর্থাৎ, আমি যখন থেকে কথা বলা শুরু করেছি তখন থেকেই কাজ করছি। তোমাদের প্রত্যেকেই আমার কর্মের বিষয়বস্তু হয়েছো। কোনো বিশেষ ব্যক্তি নয়; এবং তদুপরি, অন্য কেউ নয়। তোমরা কেবল আশীর্বাদ ভোগ করতে না পারা নিয়েই চিন্তিত, কিন্তু তোমরা তোমাদের জীবন নিয়ে চিন্তা করো না। তোমরা কত বোকা! তোমাদের অবস্থা কত করুণ! তোমরা আমার দায়ভার সম্বন্ধে একেবারেই সহানুভূতিশীল নও।

আমার সমস্ত শ্রমসাধ্য প্রচেষ্টা এবং আমায় যত মূল্য দিতে হয়েছে, তা সবই তোমাদের জন্য। তোমরা যদি আমার দায়ভার সম্বন্ধে সহানুভূতিশীল না হও, তাহলে তোমরা আমার প্রত্যাশা অনুযায়ী চলো নি। সমগ্র জাতি তোমাদের শাসনের দিকে তাকিয়ে আছে, আর সমস্ত মানুষেরা তোমাদের প্রভুত্ব স্বীকার করার জন্য অপেক্ষা করছে। আমি সবকিছু তোমাদের হাতে তুলে দিয়েছি। এখন, যারা ক্ষমতায় আছে, তারা সবাই পদত্যাগ করতে শুরু করেছে আর ধসে পড়েছে, এবং তারা কেবল তাদের প্রতি আমার বিচারের জন্য অপেক্ষা করছে। ভালো করে তাকিয়ে দেখো! সারা পৃথিবী যখন ভেঙে যাচ্ছে তখন আমার রাজত্ব সফলভাবে গড়ে উঠেছে। আমার পুত্ররা আবির্ভূত হয়েছে এবং আমার প্রথমজাত পুত্ররা বিভিন্ন জাতি ও মানুষদের শাসন করার মাধ্যমে আমার সাথে রাজা হিসাবে রাজত্ব চালাচ্ছে। এটাকে একটা অস্পষ্ট বিষয় বলে মনে কোরো না; এটা সরল সত্য। তাই নয় কি? তোমরা যখনই আমার কাছে প্রার্থনা আর মিনতি করবে, আমি অবিলম্বে পদক্ষেপ নেব এবং যারা তোমাদেরকে নিপীড়ন করে তাদের শাস্তি দেব, তোমাদের জীবনে যারা বাধার সৃষ্টি করে তাদের সাথে মোকাবিলা করব, তোমরা যাদের ঘৃণা কর তাদের ধ্বংস করে দেব এবং তোমাদের সেবা করে এমন ব্যক্তি, ঘটনা এবং জিনিসগুলো পরিচালনা করব। আমি একথা অনেকবার বলেছি: যারা খ্রিষ্টের সেবা করে (অর্থাৎ, যে কোনও ব্যক্তি যে আমার পুত্রের জন্য সেবা প্রদান করে) তাদের সকলকেই যে আমি মুক্তি দেবো, তা নয়। আমার পুত্রের সেবা করার অর্থ এই নয় যে তারা ভালো মানুষ; এটা একেবারেই আমার মহান ক্ষমতা এবং অসামান্য কাজের ফলাফল। মানবতার উপর খুব বেশি গুরুত্ব আরোপ কোরো না। এই ধরনের লোকেদের অবশ্যই পবিত্র আত্মার কাজ নেই এবং তারা আধ্যাত্মিক বিষয়গুলো একেবারেই বোঝে না। তাদের সাথে আমার কাজ শেষ হয়ে গেলে তাদের আর কোনও প্রয়োজন থাকবে না। মনে রেখো! এটাই তোমাদের প্রতি আমার দৃঢ় আশ্বাসবাক্য। হঠকারী হয়ে কিছু বুঝতে যেয়ো না, বুঝলে?

এখন অনেক কম লোক রয়েছে, তবে সদস্যরা আরও বেশি পরিমার্জিত। এটা আমার কাজ, আমার পরিচালনামূলক পরিকল্পনা এবং তার উপরে আমার বুদ্ধি এবং আমার সর্বশক্তিমত্তা। এটা হল আমার স্বাভাবিক মানবতা এবং আমার সম্পূর্ণ দেবত্বের সমন্বয়। তোমরা কি এটা পরিষ্কার দেখতে পাচ্ছ? তোমাদের এই বিষয়টার ওপরে কি কোনও বাস্তব জ্ঞান আছে? আমি আমার স্বাভাবিক মানবতা থেকে যা বলেছি তার সবই একটার পর একটা আমার দেবত্বের মাধ্যমে সম্পন্ন করব। এই কারণেই আমি বারবার বলতে থাকি যে আমি যা বলি তা কোনো অস্পষ্টতা ছাড়াই ঘটবে; বরং, এগুলো সবই খুব পরিষ্কার এবং সুস্পষ্ট হয়ে যাবে। আমি যা বলি তার সবই পূর্ণ হবে, এবং অবশ্যই উদাসীনভাবে নয়। আমি অন্তঃসারশূন্য কথা বলি না এবং আমি ভুল করি না। যে আমাকে পরিমাপ করার সাহস করে তার বিচার করা হবে, এবং অবশ্যই আমার করতল থেকে বাঁচতে পারবে না। আমার কথা বলার সাথে সাথে, প্রতিরোধ করার সাহস কার আছে? আমাকে প্রতারিত করা বা আমার কাছ থেকে কিছু গোপন করার সাহস কার আছে? আমি আগেও বলেছি: আমি একজন বিচক্ষণ ঈশ্বর। আমি আমার স্বাভাবিক মানবতা ব্যবহার করি সমস্ত মানুষ এবং শয়তানোচিত আচরণ প্রকাশ করতে, যাদের অসৎ উদ্দেশ্য আছে, যারা অন্যদের সামনে একরকম এবং পিছনে অন্যরকমভাবে কাজ করে, যারা আমার বিরোধিতা করে, যারা আমার প্রতি অনুগত নয়, যারা অর্থলোভী, যারা আমার দায়ভার সম্বন্ধে সহানুভূতিশীল নয়, যারা নিজেদের ভাই ও বোনের সাথে প্রতারণা ও কুটিলতায় লিপ্ত হয়, যারা মানুষকে আনন্দ দেওয়ার জন্য বড় বড় কথা বলে এবং যারা তাদের ভাই ও বোনদের সাথে সর্বসম্মতভাবে হৃদয় ও মনে সমন্বয় করতে পারে না, তাদের মুখোশ খুলে দিতে। আমার স্বাভাবিক মানবতার কারণে অনেক লোকই গোপনে আমার বিরোধিতা করে এবং প্রতারণা ও কুটিলতায় লিপ্ত হয়, এই ধারণা করে যে আমার স্বাভাবিক মানবতা এগুলো জানে না। আর অনেক লোক আমার স্বাভাবিক মানবতার প্রতি বিশেষ মনোযোগ দেয়, আমাকে ভোজন এবং পান করার জন্য ভাল ভাল জিনিস দেয়, আমাকে ভৃত্যের মতো সেবা করে এবং তাদের হৃদয়ে যা আছে তা আমার কাছে বলে, আর এগুলোর সাথে সাথেই আমার পিছনে সম্পূর্ণ ভিন্নভাবে কাজ করে। অন্ধ মানুষ! তোমরা আমাকে—সেই ঈশ্বরকে যিনি মানুষের হৃদয়ের গভীরে দেখতে পান—খুব সামান্যই জানো। তোমরা আজ অবধি আমাকে জানো না; তুমি এখনও মনে করো তুমি যা করছ আমি তার কিছুই জানি না। আবারও ভেবে দেখো: আমার স্বাভাবিক মানবতার কারণে কতজন মানুষ নিজের সর্বনাশ ঘটিয়েছে? জাগো! আমাকে আর প্রতারণা কোরো না। তোমার সমস্ত আচরণ এবং ব্যবহার, তোমার প্রতিটি কথা এবং কাজ অবশ্যই আমার সামনে রাখতে হবে এবং সেগুলোর ওপর আমার সুবিবেচনা গ্রহণ করতে হবে।

পূর্ববর্তী: অধ্যায় ৭৫

পরবর্তী: অধ্যায় ৮৮

প্রতিদিন আমাদের কাছে 24 ঘণ্টা বা 1440 মিনিট সময় থাকে। আপনি কি ঈশ্বরের সান্নিধ্য লাভের জন্য তাঁর বাক্য শিখতে 10 মিনিট সময় দিতে ইচ্ছুক? অনুগ্রহ করে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। 😊

সম্পর্কিত তথ্য

সর্বশক্তিমানের দীর্ঘশ্বাস

তোমার হৃদয়ে এক বিপুল গোপন বিষয় আছে যার ব্যাপারে তুমি কখনও সচেতন ছিলে না, কারণ তুমি বেঁচে আছ আলোহীন এক জগতে। তোমার হৃদয় আর তোমার আত্মা দখল...

সেটিংস

  • লেখা
  • থিমগুলি

ঘন রং

থিমগুলি

ফন্টগুলি

ফন্ট সাইজ

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

পৃষ্ঠার প্রস্থ

বিষয়বস্তু

অনুসন্ধান করুন

  • এই লেখাটি অনুসন্ধান করুন
  • এই বইটি অনুসন্ধান করুন

Messenger-এর মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন