অধ্যায় ৪২

সর্বশক্তিমান ঈশ্বরের কার্যগুলি মহান! কী বিস্ময়কর! কী চমকপ্রদ! সপ্ত ভেরী ধ্বনিত হয়, সাতটি বজ্র নিক্ষিপ্ত হয়, এবং সাতটি পাত্র পূর্ণ হয়—এগুলি অবিলম্বে সর্বসমক্ষে প্রকাশিত হবে, এবং আর কোনো সন্দেহ থাকবে না। ঈশ্বরের ভালোবাসা প্রতিদিন আমাদের কাছে আসে। একমাত্র প্রকৃত ঈশ্বরই আমাদের উদ্ধার করতে পারেন, আমরা দুর্ভাগ্যের সম্মুখীন হব না আশীর্বাদের, তা সম্পূর্ণভাবে তাঁর উপর নির্ভরশীল, এবং আমরা মানুষেরা কোনোভাবেই এটা নির্ধারণ করতে পারি না। যারা পূর্ণ হৃদয়ে নিজেদের উৎসর্গ করে তারা নিশ্চিতভাবেই প্রচুর আশীর্বাদ লাভ করবে, অন্যদিকে যারা শুধু নিজেদের জীবন বাঁচানোর চেষ্টা করে যায় তারা শুধু নিজেদের জীবনই হারাবে; সমস্ত বিষয় এবং সমস্ত বস্তু সর্বশক্তিমান ঈশ্বরের হাতে রয়েছে। আর কখনো নিজেদের পদক্ষেপ থেমো না। স্বর্গ ও মর্ত্যে বিরাট পরিবর্তন আসতে চলেছে, তা থেকে মানুষের লুকোনোর কোনো অবকাশ নেই। তীব্র যন্ত্রণায় বিলাপ করা ছাড়া তার কাছে আর কোনো পথ পড়ে রইবে না। পবিত্র আত্মা আজ যে কার্য সাধন করছেন তা অনুসরণ করো। কোন পর্যায় অবধি তাঁর কাজের অগ্রগতি হয়েছে সে বিষয়ে তোমার অন্তরে একটা স্পষ্ট ধারণা থাকা উচিত, যাতে অন্য কারোর সেটা তোমাকে মনে করিয়ে দেওয়ার প্রয়োজন না পড়ে। যত ঘন ঘন সম্ভব সর্বশক্তিমান ঈশ্বরের উপস্থিতিতে তুমি প্রত্যাবর্তন করো। সবকিছুর জন্যই তাঁকে প্রশ্ন করো। তিনি নিশ্চিত ভাবেই তোমার অন্তঃকরণ আলোকিত করবেন, এবং অত্যন্ত কঠিন মুহূর্তগুলিতে তিনি তোমাকে রক্ষা করবেন। কোনো ভয় রেখো না! তিনি ইতিমধ্যেই তোমার সমগ্র সত্তাকে অধিকার করে নিয়েছেন। তাঁর সুরক্ষা ও তাঁর যত্নে থেকে তোমার ভয় কীসের? আজ ঈশ্বরের ইচ্ছার সিদ্ধি নিকটস্থ, এবং যারাই ভীত তাদের শুধুই হারাবে। আমি তোমাকে যা বলছি তা সত্য। তোমার আধ্যাত্মিক চক্ষু উন্মীলন করো: এক লহমার স্বর্গ পরিবর্তিত হতে পারে, তাতে কিন্তু তোমার ভয় কীসের? তাঁর সামান্যতম অঙ্গুলিহেলনে, স্বর্গ ও মর্ত্য নিমেষে নিশ্চিহ্ন হয়ে যায়। তাই মানুষ দুশ্চিন্তা করে কীইবা অর্জন করবে? সমস্ত কিছুই কি ঈশ্বরের হাতে নেই? তিনি যদি স্বর্গ ও মর্ত্যকে পরিবর্তিত হওয়ার আদেশ দেন তবে তারা পরিবর্তিত হবে। তিনি যদি বলে আমাদের সম্পূর্ণ করা হোক, তাহলে আমাদের সম্পূর্ণ করা হবে। মানুষের দুশ্চিন্তা করার প্রয়োজন নেই, বরং প্রশান্ত মনে অগ্রসর হওয়া উচিত। কিন্তু তা সত্ত্বেও তোমাকে যথাযম্ভব মনোযোগ দিতে হবে এবং সতর্ক থাকতে হবে। স্বর্গ এক নিমেষে পরিবর্তিত হতে পারে! মানুষ তার চর্মচক্ষু যতই উন্মিলিত করুক না কেন, কোনোকিছুই সে ভালোভাবে দেখতে সক্ষম হবে না। এখনই সতর্ক হও। ঈশ্বরের ইচ্ছা সাধিত হয়েছে, তাঁর কর্ম সম্পূর্ণ হয়েছে, তাঁর পরিকল্পনা সফল হয়েছে, এবং তাঁর পুত্ররা সকলেই তাঁর সিংহাসনে সমীপে উপনীত হয়েছে। তারা সবাই সর্বশক্তিমান ঈশ্বরের সঙ্গে সমস্ত দেশ ও সকল মানুষের বিচার করার জন্য এসেছে। যারা গির্জার উপর নিপীড়ন চালিয়ে আসছে এবং ঈশ্বরের পুত্রদের ক্ষতি করছে তারা কঠোর শাস্তির সম্মুখীন হবে: এমনটা নিশ্চিত! যারা আন্তরিক ভাবে নিজেদের ঈশ্বরের কাছে উৎসর্গ করে, যারা সর্বস্ব দিয়ে ধরে থাকে, ঈশ্বর নিশ্চিতভাবেই তাদের চিরন্তনভাবে ভালোবাসবেন, তাতে কোনোদিন কোনো পরিবর্তন হবে না!

পূর্ববর্তী: অধ্যায় ৪১

পরবর্তী: অধ্যায় ৪৩

প্রতিদিন আমাদের কাছে 24 ঘণ্টা বা 1440 মিনিট সময় থাকে। আপনি কি ঈশ্বরের সান্নিধ্য লাভের জন্য তাঁর বাক্য শিখতে 10 মিনিট সময় দিতে ইচ্ছুক? শিখতে আমাদের ফেলোশিপে যোগ দিন। কোন ফি লাগবে না।👇

সম্পর্কিত তথ্য

শুধুমাত্র অন্তিম সময়ের খ্রীষ্ট মানুষকে অনন্ত জীবনের পথ দেখাতে পারেন

জীবনের গতিপথ কারও নিয়ন্ত্রণে থাকে না, বা এটি সহজে অর্জন করতে পারার মতো বিষয়ও নয়। কারণ জীবন কেবল ঈশ্বর প্রদত্ত, অর্থাৎ, শুধুমাত্র ঈশ্বর...

প্রার্থনার অনুশীলন বিষয়ে

তোমরা তোমাদের দৈনন্দিন জীবনে প্রার্থনার উপর জোর দাও না। মানুষ প্রার্থনার বিষয়টিকে অবহেলা করে। প্রার্থনা সাধারণত করা হয়ে থাকে দায়সারাভাবে...

সেটিংস

  • লেখা
  • থিমগুলি

ঘন রং

থিমগুলি

ফন্টগুলি

ফন্ট সাইজ

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

পৃষ্ঠার প্রস্থ

বিষয়বস্তু

অনুসন্ধান করুন

  • এই লেখাটি অনুসন্ধান করুন
  • এই বইটি অনুসন্ধান করুন

Messenger-এর মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন