অধ্যায় ২৮

তুমি যখন দেখো যে সময় এভাবে বয়ে চলেছে এবং পবিত্র আত্মার কর্ম দ্রুত এগিয়ে চলেছে, যার ফলে তুমি এই রকম মহান আশীর্বাদ অর্জন করেছ এবং এই বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের রাজাকে লাভ করেছ, যিনি প্রোজ্জ্বল সূর্য, রাজ্যের রাজা—এ সকল কিছুই আমার অনুগ্রহ এবং করুণা। এর বেশি আর কী রয়েছে যা তোমাকে আমার ভালোবাসা থেকে ছিন্ন করতে পারে? সযত্নে বিবেচনা করো, পলায়নের চেষ্টা কোরো না, শান্ত হয়ে প্রতিটি মুহূর্তে আমার সম্মুখে অপেক্ষা করো এবং সবসময় বাইরে বিচরণ কোরো না। তোমার হৃদয়কে আমার হৃদয়ের সংলগ্ন থাকতে হবে, এবং যাই ঘটুক না কেন অন্ধের মতো বা খেয়ালখুশি মতো আচরণ কোরো না। তোমাকে আমার ইচ্ছার দিকে নজর রাখতে হবে, আমি যে আকাঙ্খা পোষণ করি তা তোমাকে পালন করতে হবে এবং যা আমি চাই না তা পরিত্যাগ করতে তোমাকে দৃঢ়সংকল্প হতে হবে। আবেগের বশে চললে তোমার হবে না, কিন্তু তার পরিবর্তে তোমাকে আমার মতো ন্যায়পরায়ণতার অনুশীলন করতে হবে, এমনকি তোমার পিতামাতার প্রতিও তোমাকে আবেগশূন্য হতে হবে। যে সকল বিষয় সত্যের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয় তা তোমাকে পরিত্যাগ করতে হবে এবং বিশুদ্ধ যে হৃদয় আমাকে ভালোবাসে তা নিয়ে আমার জন্য তোমার নিজেকে উৎসর্গ ও তোমার নিজেকে ব্যয় করতে হবে। কোনো ব্যক্তি, ঘটনা বা বস্তুর নিয়ন্ত্রণ সহ্য কোরো না; যতক্ষণ সেটা আমার ইচ্ছার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ থাকে ততক্ষণ শুধুমাত্র আমার বাক্য অনুসারে সেটা অনুশীলন করো। ভয় পেয়ো না, কারণ আমার হস্তদ্বয় তোমাকে সমর্থন করে, এবং আমি তোমাকে সকল অন্যায়কারীর থেকে দূরে সরিয়ে রাখব। তোমার নিজের হৃদয়কে রক্ষা করা উচিত, সর্বদা আমার মধ্যে থেকো, কারণ তোমার জীবনের যাপন আমার নিজের জীবন যাপনের উপর নির্ভরশীল, তুমি যদি আমাকে পরিত্যাগ করো, তাহলের তুমি নিমেষের মধ্যে নির্জীব হয়ে যাবে।

তোমার জানা উচিত যে এটা অন্তিম সময়। দানব শয়তান গর্জনকারী সিংহের মতো বহির্জগতে পদচারণা করছে, গ্রাস করার জন্য মানুষদের খুঁজছে। সমস্ত রকমের ব্যাধি এখন ছড়িয়ে পড়েছে, এবং সকল ধরনের দুষ্ট আত্মাদের অনেকেই এখানে রয়েছে। একমাত্র আমিই প্রকৃত ঈশ্বর; একমাত্র আমিই তোমার আশ্রয়। এখন আমার গুপ্ত স্থানে আত্মগোপন ছাড়া তুমি আর কিছুই করতে পারো না, শুধুমাত্র আমার মধ্যে, এবং বিপর্যয়গুলি তোমাকে স্পর্শ করবে না, এবং কোনো দুর্যোগ তোমার তাঁবুর নিকটে আসবে না। তোমাকে আরো ঘন ঘন আমার নিকটে আসতে হবে এবং গুপ্ত স্থানে আমার সঙ্গে সহকারিতা করতে হবে, অন্যদের সঙ্গে শিথিল ভাবে কোনো সহকারিতা কোরো না। তোমাকে আমার বাক্যগুলির অর্থ উপলব্ধি করতে হবে—আমি একথা বলছি না যে তোমাকে সহকারিতায় অনুমতি দেওয়া হবে না, কিন্তু এখনো তোমার বিচক্ষণতা নেই। এই সময়ের মধ্যে দুষ্ট আত্মাদের কর্ম লাগামছাড়া হয়ে পড়েছে। তোমাকে সহকারিতা দেওয়ার জন্য তারা সব ধরনের মানুষকে ব্যবহার করে। তাদের কথাগুলি শুনতে মধুর হলেও সেগুলির ভেতরে বিষ রয়েছে। সেগুলি চিনির প্রলেপ দেওয়া গুলি, তুমি বুঝে ওঠার আগেই সেগুলি তোমার ভেতরে তাদের বিষ প্রয়োগ করে দেবে। তোমার জানা উচিত যে আজ অধিকাংশ মানুষই অস্থিতিশীল, যেন তারা মদ্যপ। তুমি যখন তোমার সমস্যাগুলি নিয়ে অন্যদের সঙ্গে আলোচনা করো, তখন তারা তারা তোমাকে যা বলে সেগুলি শুধুমাত্র কিছু নিয়মাবলী ও মতবাদ এবং তা আমার সঙ্গে সরাসরি সহকারিতা করার মতো কার্যকরীও নয়। আমার সম্মুখে এসো এবং তোমার ভেতরে পুরোনো যা কিছু আছে তা নির্দ্বিধায় প্রকাশ করো; আমার কাছ তোমার হৃদয়কে উন্মুক্ত করো এবং আমার হৃদয় অবশ্যই তোমার কাছে প্রকাশিত হবে। আমার সম্মুখে তোমার হৃদয়কে পরিশ্রমী হতে হবে। অলস হয়ো না, বরং আরো ঘন ঘন আমার নিকটে এসো—তোমার জীবনে বিকশিত হওয়ার এটাই সবচেয়ে দ্রুত উপায়। তোমাকে আমার মধ্যে বাস করতে হবে এবং আমি তোমার মধ্যে বাস করব এবং তোমার মধ্যে আমি রাজা হব, প্রতিটি ক্ষেত্রে তোমাকে নির্দেশনা দেব, এবং এই রাজত্বে তোমারও অংশীদারিত্ব থাকবে।

তোমার বয়স অল্প বলে নিজেকে ছোট করে দেখো না। তোমার নিজেকে আমার কাছে উৎসর্গ করা উচিত। মানুষের বাহ্যিক রূপ কেমন বা তাদের কত বয়স তা আমি বিবেচনা করি না। আমি শুধু এটাই বিচার করি যে আমাকে তারা আন্তরিকভাবে ভালোবাসে কি না, এবং তারা আমার পন্থা অনুসরণ করে কি না, এবং অন্য সমস্ত কিছুকে অগ্রাহ্য করে সত্যের অনুশীলন করে কি না। আগামীকাল কেমন হবে বা ভবিষ্যৎ কেমন হবে তা নিয়ে চিন্তিত হয়ো না। প্রতিদিন যাপনের জন্য তোমরা যতক্ষণ আমার উপর নির্ভর করবে আমিও তোমাদের পথ দেখাব। “আমার জীবন খুব ছোট, আমি কিছুই বুঝি না”-এই চিন্তা নিয়ে গড়িমসি কোরো না, এই চিন্তাটা শয়তানের পাঠানো। সকল সময়ে আমার কাছে আসার জন্য, পথের শেষ পর্যন্ত আমার পদাঙ্ক অনুসরণের জন্য তোমাকে শুধু নিজের হৃদয়কে কাজে লাগাতে হবে। তুমি যখন আমার তিরস্কার ও সাবধানবাণী শোনো, তখন জেগে ওঠ এবং সেই মুহূর্তে ছুটতে শুরু করো, কোথাও না থেমে আমার নিকটে এসো, দলের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলো এবং দৃষ্টি সামনে নিবদ্ধ রাখো। আমার উপস্থিতিতে তোমাকে তোমার হৃদয় ও আত্মা দিয়ে তোমার ঈশ্বরকে ভালোবাসতে হবে। সেবার পথে আমার বাক্যগুলিকে আরো ঘনঘন বিবেচনা করো। সত্য অনুশীলনের সময় দুর্বলচিত্ত হয়ো না—একটি শক্তিশালী হৃদয়ের অধিকারী হও, সঙ্গে রাখো পুত্র সন্তানের সংকল্প ও দৃঢ়প্রতিজ্ঞা; একটি দুর্দমনীয় হৃদয়ের অধিকারী হও। তুমি যদি আমাকে ভালোবাসতে চাও, তবে যাকিছু আমি তোমার মধ্যে সম্পন্ন করতে চাই সেই সকল কিছুতেই তোমায় আমাকে পরিতৃপ্ত করতে হবে। তুমি যদি আমাকে অনুসরণ করতে চাও তাহলে তোমার যা কিছু আছে, যা কিছু তুমি ভালোবাসো সে সব তোমাকে পরিত্যাগ করতে হবে; তোমাকে আমার সম্মুখে অবনতচিত্তে, সহজ মনে নিজেকে সমর্পণ করতে হব। বিশৃঙ্খল ভাবে অনুসন্ধান না চিন্তা কোরো না, বরং পবিত্র আত্মার কর্মের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলো।

এখানে, আমি তোমাকে পরামর্শ দিচ্ছি: তোমার মধ্যে আমি যা কিছু আলোকিত করেছি তাকে আঁকড়ে ধরে রাখো, এবং অবশ্যই তা অনুশীলন করো!

পূর্ববর্তী: অধ্যায় ২৬

পরবর্তী: অধ্যায় ৩৩

প্রতিদিন আমাদের কাছে 24 ঘণ্টা বা 1440 মিনিট সময় থাকে। আপনি কি ঈশ্বরের সান্নিধ্য লাভের জন্য তাঁর বাক্য শিখতে 10 মিনিট সময় দিতে ইচ্ছুক? শিখতে আমাদের ফেলোশিপে যোগ দিন। কোন ফি লাগবে না।👇

সম্পর্কিত তথ্য

সর্বশক্তিমানের দীর্ঘশ্বাস

তোমার হৃদয়ে এক বিশাল গোপন বিষয় আছে যার ব্যাপারে তুমি কখনও সচেতন ছিলে না, কারণ তুমি বেঁচে আছ আলোকহীন এক জগতে। তোমার হৃদয় আর তোমার আত্মাকে...

ঈশ্বর হলেন মানুষের জীবনের উৎস

ক্রন্দনরত অবস্থায় এই জগতে ভূমিষ্ঠ হবার সময় থেকেই তুমি তোমার কর্তব্য পালন করা শুরু করো। ঈশ্বরের পরিকল্পনা ও তাঁর নির্ধারিত নিয়তি অনুসারে...

সেটিংস

  • লেখা
  • থিমগুলি

ঘন রং

থিমগুলি

ফন্টগুলি

ফন্ট সাইজ

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

পৃষ্ঠার প্রস্থ

বিষয়বস্তু

অনুসন্ধান করুন

  • এই লেখাটি অনুসন্ধান করুন
  • এই বইটি অনুসন্ধান করুন

Messenger-এর মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন