অধ্যায় ১৮

গির্জার নির্মাণ বস্তুতই কোনো সহজ কাজ নয়! এর নির্মাণে আমি আমার পুরো হৃদয় নিয়োজিত করি, এবং একে ধ্বংস করার জন্য শয়তান তার যথাসাধ্য চেষ্টা করবে। তুমি যদি নির্মিত হতে চাও, তাহলে তোমাকে অবশ্যই একজন দৃষ্টিসম্পন্ন মানুষ হতে হবে; আমার উপর নির্ভর করে বাঁচতে হবে, খ্রীষ্টের হয়ে সাক্ষ্য দিতে হবে, এবং তাঁকে উচ্চাসনে তুলে ধরতে হবে এবং আমার প্রতি বিশ্বস্ত হতে হবে। তোমার কোনো অজুহাত দেওয়া উচিত নয়, বরং তোমার নিঃশর্তভাবে মান্য করা উচিত। তোমাকে যেকোনো পরীক্ষা সহ্য করতে হবে এবং আমার কাছ থেকে যা আসে তার সবকিছু স্বীকার করে নিতে হবে। পবিত্র আত্মাকে তোমার অনুসরণ করতে হবে তা তিনি যেভাবেই তোমাকে পথপ্রদর্শন করুন না কেন। এক তীক্ষ্ণ চেতনা এবং বিভিন্ন বস্তুর মধ্যে পৃথগীকরণের ক্ষমতা তোমার থাকতে হবে। মানুষকে তোমার জানতে হবে, এবং তাদের অন্ধের মতো অনুসরণ করলে চলবে না; তোমার আধ্যাত্মিক চক্ষুকে স্বচ্ছ রাখো, এবং সমস্তকিছু সম্বন্ধে বিশদ জ্ঞানের অধিকারী হও। যে সমস্ত মানুষ আমার সমমনোভাবাপন্ন তাদের আমার হয়ে সাক্ষ্যে দৃঢ় থাকতে হবে এবং শয়তানের বিরুদ্ধে নির্ণায়ক যুদ্ধে অবতীর্ণ হতে হবে। তোমাদের একই সাথে নির্মিত হতে হবে এবং যুদ্ধে অংশ নিতে হবে। আমি তোমাদের মধ্যে আছি; আমি তোমাদের সমর্থন করি, এবং আমি তোমাদের আশ্রয়।

প্রথমেই তোমার নিজেকে পরিশুদ্ধ করতে হবে, একজন রূপান্তরিত ব্যক্তিতে পরিণত হতে হবে, এবং একটি স্থিতিশীল মানসিকতা বজায় রাখতে হবে। তোমার জীবনে তোমাকে অবশ্যই আমার উপর নির্ভর করতে হবে, সে তোমার প্রতিবেশ ভালো-মন্দ যাই হোক না কেন, সে তুমি গৃহে বা অন্য যেকোনো পরিমণ্ডলে থাকো না কেন, অন্য কোনো ব্যক্তির কারণে বা কোনো ঘটনা বা বিষয়ের কারণে তোমার হোঁচট খেলে চলবে না। অধিকন্তু, তোমাকে দৃঢ় হয়ে দাঁড়াতে হবে এবং, যথারীতি খ্রীষ্টকে যাপন করতে হবে এবং স্বয়ং ঈশ্বরকে প্রতীয়মান করে তুলতে হবে। তোমাকে নিজের কার্য সম্পন্ন করতে হবে এবং স্বাভাবিক নিয়মেই নিজের কর্তব্য পালন করতে হবে; এটা শুধু একবার করলেই চলবে না, বরং দীর্ঘমেয়াদে এটা বজায় রাখতে হবে। আমার হৃদয়কে তোমার নিজের হৃদয় বলে গ্রহণ করতে হবে, আমার অভিপ্রায়গুলি তোমার নিজের ভাবনা হয়ে উঠতে হবে, তোমাকে বৃহত্তর ছবিটা বিবেচনার মধ্যে আনতে হবে, খ্রীষ্টকে তোমার মধ্যে থেকে আবির্ভূত হতে দিতে হবে, এবং অন্যান্যদের সঙ্গে সমন্বয় রেখে তোমাকে সেবা করতে হবে। পবিত্র আত্মার কার্যের সঙ্গে তোমাকে তাল মিলিয়ে চলতে হবে এবং তাঁর পরিত্রাণের প্রক্রিয়ায় নিজেকে সঁপে দিতে হবে। তোমাদের নিজেকে শূন্য করতে হবে এবং একজন নিষ্পাপ ও অকপট মানুষ হয়ে উঠতে হবে। তোমার ভ্রাতা ও ভগিনীদের সঙ্গে সহকারিতা করতে হবে এবং তাদের সঙ্গে মেলামেশা করতে হবে, আত্মা দিয়ে কার্যসাধনে সক্ষম হও, একে অপরকে ভালোবাসো, তাদের শক্তিগুলির সাহায্যে নিজের দুর্বলতাগুলির ভারসাম্য রক্ষিত হতে দাও, এবং গির্জার মধ্যে নির্মিত হওয়ার প্রয়াস করো। একমাত্র তাহলেই প্রকৃত অর্থে তুমি রাজ্যের এক অংশীদারিত্ব লাভ করবে।

পূর্ববর্তী: অধ্যায় ১৭

পরবর্তী: অধ্যায় ২০

প্রতিদিন আমাদের কাছে 24 ঘণ্টা বা 1440 মিনিট সময় থাকে। আপনি কি ঈশ্বরের সান্নিধ্য লাভের জন্য তাঁর বাক্য শিখতে 10 মিনিট সময় দিতে ইচ্ছুক? শিখতে আমাদের ফেলোশিপে যোগ দিন। কোন ফি লাগবে না।👇

সম্পর্কিত তথ্য

প্রার্থনার অনুশীলন বিষয়ে

তোমরা তোমাদের দৈনন্দিন জীবনে প্রার্থনার উপর জোর দাও না। মানুষ প্রার্থনার বিষয়টিকে অবহেলা করে। প্রার্থনা সাধারণত করা হয়ে থাকে দায়সারাভাবে...

একটি সাধারণ আধ্যাত্মিক জীবন মানুষকে সঠিক পথে নিয়ে যায়

তোমরা ঈশ্বরের প্রতি বিশ্বাসের পথে খুব সামান্য অংশই হেঁটেছো, এবং তোমরা এখনও সঠিক পথে প্রবেশ করতে পারোনি, তাই তোমরা এখনও ঈশ্বরের নির্ধারিত...

শুধুমাত্র অন্তিম সময়ের খ্রীষ্ট মানুষকে অনন্ত জীবনের পথ দেখাতে পারেন

জীবনের পথ কারো দখলে থাকতে পারে না, বা এটি সহজে অর্জন করতে পারার মতো বিষয়ও নয়। কারণ জীবন কেবল ঈশ্বর প্রদত্ত, অর্থাৎ, শুধুমাত্র ঈশ্বর নিজেই...

সেটিংস

  • লেখা
  • থিমগুলি

ঘন রং

থিমগুলি

ফন্টগুলি

ফন্ট সাইজ

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

পৃষ্ঠার প্রস্থ

বিষয়বস্তু

অনুসন্ধান করুন

  • এই লেখাটি অনুসন্ধান করুন
  • এই বইটি অনুসন্ধান করুন

Messenger-এর মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন