অধ্যায় ১১৮

যে ব্যক্তিই আমার পুত্রের হয়ে সাক্ষ্য বহন করার জন্য উঠে দাঁড়ায়, তার উপরেই আমি আমার অনুগ্রহ বর্ষণ করব; যারা আমার পুত্রের হয়ে সাক্ষ্য বহন করার জন্য উঠে দাঁড়ায় না, বরং তাকে প্রতিরোধ করে এবং মনুষ্যোচিত ধারণা নিয়ে নিজেদের মূল্যায়ন করে, আমি তাদের ধ্বংস করব। সকলকে স্পষ্টভাবে প্রত্যক্ষ করতে হবে! আমার পুত্রের জন্য সাক্ষ্য বহনের অর্থই হল আমার প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন, এবং তা আমার ইচ্ছাকে পূর্ণ করে। পুত্রকে লাঞ্ছনা করে ও তার উপর নির্যাতন চালিয়ে, শুধুমাত্র পিতাকে শ্রদ্ধা কোরো না। এটা যারা করে যারা অতিকায় লাল ড্রাগনের বংশধর। আমার পুত্রের হয়ে সাক্ষ্য বহন করার জন্য এই ধরনের নীচ ব্যক্তিদের আমি চাই না; আমি তাদের অতল গহ্বরের মধ্যে ধ্বংস করব। আমার পুত্রের সেবার জন্য আমি অনুগত এবং সৎ সেবা-প্রদানকারীদের চাই; আর বাদবাকিদের কথা বলতে গেলে, আমার তাদের প্রয়োজন নেই। এটাই আমার ধার্মিক স্বভাব, এবং এর মাধ্যমেই প্রকাশ পায় যে আমিই স্বয়ং পবিত্র নিষ্কলঙ্ক ঈশ্বর। আমার প্রশাসনিক ফরমানসমূহকে যারা অমান্য করে তাদের আমি কখনোই ক্ষমা করব না। যারাই অতীতে আপনাকে অমান্য করেছে বা আপনার উপর নির্যাতন চালিয়েছে, সে পরিবারের মধ্যেই হোক বা বিশ্বে, আমি তাদের এক এক করে শাস্তি দেব, এবং কেউই রেহাই পাবে না, কারণ আমার মধ্যে রক্ত-মাংস দিয়ে গড়া কোনো অংশ নেই। আজ আপনার হয়ে সাক্ষ্য বহন করার মাধ্যমে সেবা-প্রদানকারীরা আমায় সেবার কাজ সম্পূর্ণ করেছে, তাই কোনোরম আপত্তি বা উদ্বেগ রাখবেন না। শেষ পর্যন্ত তারা আপনারই সেবা-প্রদানকারী, এবং, দিনের শেষে, আপনি স্বর্গেরই, এবং অন্তিমে আপনি আমার দেহে প্রত্যাগমন করবেন, কারণ আপনি-ব্যতীত আমার দেহ থাকতে পারে না। আপনাকে যারা অমান্য করেছে এবং অতীতে যারা আপনার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ ছিল না (এই বিষয়টি এমনই যা অন্যরা দেখতে পায় না; যা শুধুমাত্র আপনি আপনার অন্তর দিয়ে জানেন), তারা বর্তমানে নিজেদের স্বরূপ প্রকাশ করেছে এবং পতিত হয়েছে, কারণ আপনিই স্বয়ং ঈশ্বর এবং কেউ আপনাকে অগ্রাহ্য ও অপমান করলে তা আপনি সহ্য করেন না। যদিও বাইরে থেকে এটা কোনোভাবেই দেখা যায় না, তবু আমার আত্মা আপনার অভ্যন্তরে রয়েছে; এটা প্রশ্নাতীত। সব মানুষকেই এটা বিশ্বাস করতে হবে, যারা তা অগ্রাহ্য করবে আমার লৌহদণ্ড তাদের সকলকেই আঘাত করবে! যেহেতু আমি আপনার হয়ে সাক্ষ্যদান করি, সেহেতু আপনি অবশ্যই কর্তৃত্ব বহন করেন, এবং আপনি যা বলেন তা সকলই আমার অভিব্যক্তি, এবং আপনি যা করেন তা সমস্তই আমার প্রকাশ, কারণ আপনিই আমার প্রিয়তম, এবং আপনিই সেই অংশ যা বিহনে আমার সত্তা সম্পূর্ণ হতে পারে না। সুতরাং, আপনার প্রতিটি পদক্ষেপ, আপনার পরিধেয়, আপনার ব্যবহার্য, আপনার বাসস্থান – সকলই আমারও কর্ম। কেউ যেন আপনার বিরুদ্ধে কোনোকিছুর সন্ধান না করে, কেউ যেন আপনার কোনো ত্রুটি না ধরে। কেউ যদি তা করে, আমি তাদের ক্ষমা করব না!

আমার গৃহ থেকে আমি সব দুষ্ট সেবকদের বিতাড়ন করব, এবং আমার গৃহের অভ্যন্তরে সমস্ত অনুগত সেবকদের আমার প্রথমজাত প্রথমজাত পুত্রদের হয়ে সাক্ষ্য দেওয়াবো; এই হল আমার পরিকল্পনা, এবং এই পথেই আমি কর্ম করি। দুষ্ট সেবকরা যখন আমার পুত্রের হয়ে সাক্ষ্য বহন করে, তখন মৃত মানুষের গন্ধ ভেসে আসে, যা আমার অতীব ঘৃণার্হ। অনুগত সেবকরা যখন আমার পুত্রের হয়ে সাক্ষ্য বহন করে, তখন সেটা আন্তরিক এবং অকপট, এবং এটা আমার কাছে গ্রহণযোগ্য। সুতরাং, যারা আমার পুত্রের হয়ে সাক্ষ্য বহনে অনিচ্ছুক তারা এই মুহূর্তে এখান থেকে বেরিয়ে যাও! এটার জন্য আমি তোমাদের জোর করব না – আমি যদি তোমাকে বেরিয়ে যেতে বলি, তবে তোমাকে বেরিয়ে যেতেই হবে! দেখো কী তোমার পরিণতি হয় এবং কী তোমার জন্য অপেক্ষা করছে; যারা সেবা প্রদান করেছে তারা অন্য যে কোনো ব্যক্তির তুলনায় এটা ভালো করে উপলব্ধি করে। আমার বিচার, আমার ক্রোধ, আমার অভিশাপ, আমার দহন এবং আমার সুতীব্র বিক্ষোভ যেকোনো মুহূর্তে তাদের উপর বর্ষিত হবে যারা আমাকে অমান্য করে। আমার হস্ত কারো প্রতি কোনো করুণা প্রদর্শন করে না; যারাসেবা প্রদান করছে তারা অতীতে যতই অনুগত থাকুক না কেন, তারা যদি বর্তমানে আমার পুত্রকে অমান্য করে তবে আমি তাদের অবিলম্বে ধ্বংস করে দেব, আমি তাদের আমার সম্মুখে থাকার অনুমতি দেব না। এর থেকে, একজন বুঝতে পারবে আমার হস্ত কতখানি নির্দয়। যেহেতু মানুষ আমাকে জানে না, এবং যেহেতু তাদের স্বভাব আমাকে অমান্য করে, সেহেতু, এমনকি, যারা আমার প্রতি অনুগত, তারাও শুধুমাত্র নিজেদের সুখানুভূতির জন্যই আমার প্রতি অনুগত। যদি কোনো ঘটনার ক্ষতিকর প্রভাব তাদের উপর পড়ে, তখন সেই মুহূর্তেই তাদের হৃদয়ের পরিবর্তন ঘটে যায় এবং তারা আমার পাশ থেকে সরে যেতে চায়। এটা শয়তানের স্বভাব। তোমাদের নিজেদের একটা মতামত ধরে রাখলে চলবে না, নিজেদের অনুগত বলে বিশ্বাস করে গেলেও চলবে না! এর মধ্যে যদি তাদের জন্য কিছুই না থাকে, তাহলে এই পশুর দল আমার প্রতি অনুগত হতে নিছকই অক্ষম। আমি যদি আমার প্রশাসনিক ফরমানসমূহ জারি না করতাম, তাহলে তোমরা অনেক আগেই আমার কাছ থেকে পলায়ন করতে। তোমরা এখন দ্বিমুখী সংকটে পড়েছ, একদিকে আমার জন্য সেবাপ্রদান করতে অনিচ্ছুক, আবার আমার হাতে ধ্বংসও হতে চাওনা। আমায় যারা অমান্য করবে তারা প্রবল বিপর্যয়ের সম্মুখীন হবে – এই ঘোষণা যদি আমি না করতাম, তাহলে তোমরা বহু আগেই পলায়ন করতে। মানুষ কী কী চাতুরি অবলম্বন করতে পারে তা কি আমি জানি না? অধিকাংশ মানুষ মনে মনে একটা ক্ষুদ্র আশা লালন করে, কিন্তু সেই আশা যখন হতাশায় পরিণত হয়, তখন তারা আর অগ্রসর হতে চায় না, এবং তারা পিছু হঠে যায়। আমি এটা আগেও বলেছি আমি এখানেই কাউকেই তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধরে রাখি না, কিন্তু তোমার পরিণতি কী হবে, তা নিয়ে চিন্তাভাবনায় যত্নশীল হই। আমি কিন্তু তোমাকে হুমকি দিচ্ছি না; এটাই প্রকৃত ঘটনা। আমি ছাড়া কেউ মানবপ্রকৃতির তল পায় না; মানুষ ভাবে যে তারা আমার প্রতি অনুগত, কিন্তু তারা এটা জানে না যে তাদের এই আনুগত্য অশুদ্ধ। এই অশুদ্ধতা মানুষকে ধ্বংস করে দেবে, কারণ তারা অতিকার লাল ড্রাগনের একটা চক্রান্ত। দীর্ঘদিন আগেই আমি তার চক্রান্ত ফাঁস করেছি; আমি সর্বশক্তিমান ঈশ্বর, এত সহজ একটা একটা বিষয় আমি বুঝব না তা কী করে হতে পারে? তোমার অভিপ্রায় দেখার জন্য আমি তোমার দেহ ভেদ করে ঢুকতে পারি। মানবপ্রকৃতির তল খুঁজে পাওয়াটা আমার পক্ষে কঠিন নয়, কিন্তু মানুষ নিজেদের খুব চতুর বলে মনে করে, তারা ভাবে নিজেরা ছাড়া অন্য কেউই বুঝি তাদের অভিপ্রায় বোঝে না। তারা কি এটা জানে না যে স্বর্গ, পৃথিবী ও সকল কিছুর মধ্যে সর্বশক্তিমান ঈশ্বর বিরাজমান?

শেষ পর্যন্ত আমি আমার পুত্রকে ভালোবেসে যাব, এবং চিরদিন ও চিরকালের জন্য আমি অতিকায় লাল ড্রাগন ও শয়তানকে ঘৃণা করব। আমাকে যারা অমান্য করবে তাদের সকলে উপর আমার শাস্তি নেমে আসবে এবং একজন শত্রুও রেহাই পাবে না। আমি আগেই বলেছি, “সিয়োনে আমি আমি একটা বৃহৎ প্রস্তর স্থাপন করেছি। বিশ্বাসীদের কাছে এই প্রস্তরই তাদের নির্মাণের ভিত্তি। বিশ্বাস যারা করে না তারা এই পাথরের উপরই হোঁচট খায়। শয়তানের পুত্রদের কাছে এটা এমন একটা প্রস্তর যা তাদের পিষে মারে”। শুধুমাত্র আমিই পূর্বে এই বাক্যগুলি বলিনি, বরং বহুজনই এর ভবিষ্যদ্বাণী করে গিয়েছেন, এযুগেও বহু মানুষ বাক্যগুলির এই অনুচ্ছেদটি পাঠ করেছেন। এছাড়াও, কিছু মানুষ এই বাক্যগুলিকে ব্যাখ্যার চেষ্টা করেছে, কিন্তু কেউই এর আগে এই রহস্যের উদ্ঘাটন করতে পারেনি, কারণ অন্তিম সময়ের বর্তমান এই কালেই এই কার্য সাধিত হয়। তাই, যদিও কিছু মানুষ এই বাক্যগুলিকে ব্যাখ্যার চেষ্টা করেছে, তাদের ব্যাখ্যাগুলি সকলই ভ্রান্ত বিশ্বাসমাত্র। আজ, আমি তোমাদের কাছে সম্পূর্ণ অর্থ প্রকাশ করছি যাতে আমার প্রথমজাত পুত্রদের হয়ে সাক্ষ্য দেওয়ার গুরুত্ব, এবং এই কাজে নিহিত আমার উদ্দেশ্য তোমরা জানতে পারো। সিয়োনে আমি একটা বৃহৎ প্রস্তর স্থাপন করেছি, এই প্রস্তরের অর্থই হল আমার প্রথমজাত পুত্রদের সাক্ষ্য বহন করা হচ্ছে। “বৃহৎ” শব্দের এই অর্থ এই নয় যে বৃহৎ আকারে এই সাক্ষ্য বহন করা হচ্ছে, বরং, এর অর্থ হল এই যে, আমার প্রথমজাত পুত্রদের হয়ে সাক্ষ্য দেওয়ার মাধ্যমে বহু সেবা-প্রদানকারী পলায়ন করবে। এখানে, “যারা বিশ্বাস করে না” কথাটির অর্থ হল, আমার পুত্রের সাক্ষ্যদান করা হচ্ছে বলে যারা পলায়ন করে। এই ধরনের ব্যক্তির কাছে এই প্রস্তরটি একটি প্রতিবন্ধকসুলভ প্রস্তত। আমি একে প্রস্তর বলছি, কারণ এই ধরনের ব্যক্তিরা আমার হাতে ধ্বংস হবে, এবং সেই কারণেই “যে প্রস্তর মানুষকে হোঁচট খাওয়ায়” সেটির কথা পড়ে যাওয়া বা দুর্বল হয়ে পড়ার প্রসঙ্গে উত্থাপন করা হয়নি, আমার হাতে ধ্বংস হওয়ার প্রসঙ্গেই কথাটি বলা হয়েছে। “বিশ্বাসীদের কাছে এই প্রস্তর তাদের নির্মাণের ভিত্তি”-এই শব্দবন্ধনীর মধ্যে “বিশ্বাসী” বলতে সেইসব সেবা-প্রদানকারীদের বোঝায় যারা অনুগত এবং “তাদের নির্মাণের ভিত্তি” বলতে সেই অনুগ্রহ ও আশীর্বাদকে বোঝায় যা তারা আমার প্রতি বিশ্বস্ত সেবা-প্রদানের পর লাভ করবে। খুব শীঘ্রই যে এই সমগ্র পুরাতন যুগের অবসান ঘটবে সেটা বোঝাতে প্রথমজাত পুত্রদের সাক্ষ্য দেওয়া হয়েছে, অর্থাৎ এটি শয়তানের রাজত্বের ধ্বংসের প্রতীক বহন করে, অর্থাৎ এই প্রস্তর অইহুদিদের পিষে মারবে। প্রতিটি দেশের এইভাবে ছিন্নভিন্ন হয়ে যাওয়াটা সমগ্র বিশ্বের নবীকরণকে সূচিত করে; পুরাতনের অবসান ঘটবে এবং নূতনের প্রতিষ্ঠা হবে – এটাই “ছিন্নভিন্ন”-র প্রকৃত অর্থ। তোমরা কি উপলব্ধি করো? শেষ পর্যায়ে আমি যা কার্য সাধন করি তাকে মাত্র এই কয়েকটি শব্দে সংক্ষেপে প্রকাশ করা যেতে পারে। এই-ই হল আমার চমকপ্রদ কর্ম, এবং আমার ইচ্ছাকে তোমাদের আমার বাক্যগুলির ভিতর উপলব্ধি করা উচিত।

পূর্ববর্তী: অধ্যায় ১০৮

পরবর্তী: অধ্যায় ১১৯

প্রতিদিন আমাদের কাছে 24 ঘণ্টা বা 1440 মিনিট সময় থাকে। আপনি কি ঈশ্বরের সান্নিধ্য লাভের জন্য তাঁর বাক্য শিখতে 10 মিনিট সময় দিতে ইচ্ছুক? শিখতে আমাদের ফেলোশিপে যোগ দিন। কোন ফি লাগবে না।👇

সম্পর্কিত তথ্য

একটি সাধারণ আধ্যাত্মিক জীবন মানুষকে সঠিক পথে নিয়ে যায়

তোমরা ঈশ্বরের প্রতি বিশ্বাসের পথে খুব সামান্য অংশই হেঁটেছো, এবং তোমরা এখনও সঠিক পথে প্রবেশ করতে পারোনি, তাই তোমরা এখনও ঈশ্বরের নির্ধারিত...

শুধুমাত্র অন্তিম সময়ের খ্রীষ্ট মানুষকে অনন্ত জীবনের পথ দেখাতে পারেন

জীবনের গতিপথ কারও নিয়ন্ত্রণে থাকে না, বা এটি সহজে অর্জন করতে পারার মতো বিষয়ও নয়। কারণ জীবন কেবল ঈশ্বর প্রদত্ত, অর্থাৎ, শুধুমাত্র ঈশ্বর...

সেটিংস

  • লেখা
  • থিমগুলি

ঘন রং

থিমগুলি

ফন্টগুলি

ফন্ট সাইজ

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

পৃষ্ঠার প্রস্থ

বিষয়বস্তু

অনুসন্ধান করুন

  • এই লেখাটি অনুসন্ধান করুন
  • এই বইটি অনুসন্ধান করুন

Messenger-এর মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন