অধ্যায় ৭৩

আমি বলা মাত্রই আমার বাক্য বাস্তব রূপ নেয়; এদের কোনো পরিবর্তন হয় না, এগুলি শাশ্বত সত্য। এটা মনে রেখো! আমার মুখনিঃসৃতপ্রতিটি বাক্য ও শব্দবন্ধকে তোমাদের অবশ্যই সযত্নে বিবেচনা করা উচিত। অতিরিক্ত সজাগ থেক, অন্যথায় তোমার ক্ষতি হবে, তুমি কেবল আমার বিচার আমার ক্রোধই অর্জন করবে এবং আমার দ্বারা ভস্মীভূত হবে। আমার কাজ এখন দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে, যদিও তা ত্রুটিপূর্ণ নয়; তা এতই সূক্ষ্মভাবে পরিমার্জিত যে চর্মচক্ষুতে বস্তুত দেখাই যায় না, মানুষ করায়ত্ত করতে পারে না। তা খুব বিবেচনাপূর্ণ ভাবে করতে হয়। আমি কখনও শূন্যগর্ভ বাক্য উচ্চারণ করি না; যা বলি তা সবই সত্য। তোমাদের এ বিশ্বাস থাকা উচিত যে আমার প্রতিটি বাক্যই নিখাদ ও নির্ভুল। অসাবধানী হয়ো না; এই মুহূর্ত অতীব গুরুত্ববাহী! এই মুহূর্তেই নির্ধারিত হবে যে তোমরা আশীর্বাদপ্রাপ্ত হবে, না দুর্ভোগপীড়িত, এবং এর মধ্যে আসমান-জমিন তফাৎ রয়েছে। তোমরা স্বর্গে যাবে না মৃতস্থানে, তা সম্পূর্ণ আমার নিয়ন্ত্রণে। যারা মৃতস্থান-গামী, তারা তাদের মরণ-বাঁচন সংগ্রামে রত, এবং যারা স্বর্গে যাবে তারা শেষবারে মতো আমার জন্য কষ্টভোগ করেছে এবং নিজেদের ব্যয় করছে। ভবিষ্যতে তারা যা কিছু করবে তার মধ্যে অকিঞ্চিৎকর পীড়াদায়ক বিষয়গুলি (বিবাহ, কাজকর্ম, সমস্যাকীর্ণ সম্পদ, পদমর্যাদা, প্রভৃতি) নেই, রয়েছে আনন্দ ও প্রশস্তি। তবে, যারা মৃতস্থানে চলেছে, তাদের কষ্ট চিরন্তন (তা তাদের দেহ-মন-আত্মার সঙ্গে সম্পর্কিত); তারা আমার শাস্তির হাত থেকে কখনও পলায়ন করতে পারবে না। এই দুই পক্ষ আগুন ও জলের ন্যায় বিসদৃশ। উভয় একত্রে মিশ্রিত হতেই পারে না। যারা দুর্ভাগ্যের শিকার তাদের দুর্ভোগের শিকার হতেই হবে হবে, এবং যারা আশীর্বাদধন্য তারা প্রাণভরে আনন্দ উপভোগ করবে।

সমস্ত ঘটনা ও বিষয় আমার দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়, এবং বলাই বাহুল্য যে, তোমরা – আমার পুত্রগণ, আমার প্রিয়জনেরা – আমারই। তোমরা আমার ছয় হাজার বছরের পরিচালনামূলক পরিকল্পনার নির্যাস; তোমরা আমার সম্পদ। যাদের আমি ভালোবাসি তারা আমার দৃষ্টিনন্দন, কারণ তারা আমায় প্রতিভাত করে; যাদের আমি ঘৃণা করি, তাদের দৃকপাত পর্যন্ত না করেই আমি তাদের ঘৃণা করি, এমনকি তাদের দিকে তাকাইও না, কারণ তারা হলো শয়তানের উত্তরসূরী, তারা শয়তানের অধিকারে রয়েছে। আজ মানুষের উচিত নিজেদের পরীক্ষা করে দেখা: যদি তোমার অভিপ্রায় সঠিক হয়, এবং তুমি আমায় প্রকৃতই ভালোবাসো, তাহলে তুমি নিশ্চিতভাবেই আমার ভালোবাসা পাবে। তোমার অবশ্যই আমায় প্রকৃতভাবে ভালোবাসা দরকার, এবং আমায় প্রতারণা করা উচিত নয়! আমিই সেই ঈশ্বর যিনি মানুষের অন্তরের অন্তঃস্থল পরীক্ষা করে দেখেন! যদি তোমার উদ্দেশ্য ভ্রান্ত হয়, এবং আমার প্রতি যদি তুমি অবিশ্বস্ত ও নিরুত্তাপ হও, তবে তুমি অবশ্যই আমার বিরাগভাজন হবে; আমি তোমায় নির্বাচিত-ও করিনি, তোমার বিষয়ে পূর্ব-পরিকল্পনাও করিনি। তুমি কেবল নরকে যাওয়ার জন্যে অপেক্ষা করতে থাকো! অন্য মানুষ এই সকল বিষয়ে দেখতে সক্ষম নাও হতে পারে, কিন্তু কেবলমাত্র তুমি এবং আমি, সেই ঈশ্বর যিনি মানব হৃদয়ের গভীর অবধি দেখতে পান তিনি, আমরাই এগুলি জানি। একটি নির্দিষ্ট সময়ে এগুলি প্রকাশিত হবে। নিষ্ঠাবানদের উদ্বিগ্ন হওয়ার কারণ নেই, এবং কপটদের ভীত হওয়ারও কারণ নেই। এ সমস্ত কিছুই আমার প্রাজ্ঞ পূর্ব-পরিকল্পনার অংশ বিশেষ।

আগত দায়িত্ব অত্যন্ত জরুরী ও গুরুভার, এবং এই চূড়ান্ত কাজ সম্পূর্ণ করার জন্যে তোমাদের উচিত আমার জন্যে শেষ বারের মতো নিজেদেরকে ব্যয় করা। আমার বিরাট কিছু দাবী নেই: আমি শুধু চাই যে তোমরা ভালোভাবে র আমার সাথে সমন্বিত হতে, সকল বিষয়ে আমাকে সব বিষয়ে সন্তুষ্ট করতে, এবং আমি অন্তর থেকে তোমায় যে নির্দেশনা প্রদান করি তা অনুসরণ করতে সক্ষম হও, অন্ধ হয়ো না; লক্ষ্য স্থির রেখো, এবং সকল বিষয়ে ও সমস্ত ব্যাপারে আমার অভিপ্রায় অনুভব করো। কারণ আমি তোমাদের কাছে আর কোনো প্রচ্ছন্ন ঈশ্বর নই, এবং আমার অভিপ্রায় উপলব্ধি করার জন্য তোমাদের উচিত এই বিষয়ে সুস্পষ্টতা অর্জন করা। অল্প সময়কালের মধ্যেই, তোমাদের যে কেবল সত্যসন্ধানী বিদেশীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ ঘটবে শুধু তা-ই নয়, তোমাদের তাদের পথনির্দেশ করতেও সক্ষম হতে হবে। এই-ই হল আমার জরুরী অভিপ্রায়; তুমি তা দেখতে না পেলে চলবে না। তবে আমার সর্বশক্তিমত্তায় তোমায় বিশ্বাস রাখতেই হবে। মানুষ যতক্ষণ ঠিক থাকছে ততক্ষণ আমি তাদের অবশ্যই ভালো সৈনিক হওয়ার প্রশিক্ষণ দেবো। আমার দ্বারা সমস্তকিছুরই যথাযথ আয়োজন করা আছে। তোমাদের মধ্যে অবশ্যই আমার উদ্দেশ্যে কষ্টভোগ করার আকাঙ্ক্ষা থাকতে হবে। এই হল মূল সময়। এই সময়টাকে হাতছাড়া কোরো না! তুমি অতীতে কী করেছ তার উপর আমি বিস্তারিত আলোচনা করব না। তোমাদের উচিত ঘনঘন আমার সামনে প্রার্থনা ও মিনতি করা। আমি তোমাদের উপভোগ ও ব্যবহারের জন্য পর্যাপ্ত অনুগ্রহ প্রদান করবো। অনুগ্রহ ও আশীর্বাদ এক নয়। তোমরা এখন যা উপভোগ করছ তা হল আমার অনুগ্রহ, এবং আমার নজরে উল্লেখযোগ্য নয়, আর আশীর্বাদ হল তা, যা তোমরা ভবিষ্যতে অনন্তকালের জন্য উপভোগ করবে। এই আশীর্বাদ মানুষ এখনো পায়নি, এবং তা মানুষের অকল্পনীয়। তাই আমি বলি যে তোমরা আশীর্বাদধন্য, এবং সৃষ্টিকাল থেকে অদ্যবধি মানুষ এই আশীর্বাদসমূহ উপভোগ করেনি।

আমি আমার সব কিছু তোমাদের কাছে প্রকাশ করেছি। আমি শুধু আশা করি যে তোমরা আমার হৃদয়ের প্রতি সহানুভূতিশীল হও, যা কিছু কর সবেতে তোমার চিন্তা আমায় নিয়োজিত কর সকল বিষয়ে আমার প্রতি বিবেচনাশীল হও, আমি সর্বদা তোমাদের হাসিমুখ দেখতে পাই। এখন থেকে যারা প্রথমজাত পুত্র হিসেবে বিবেচিত হবে তারা আমার পাশে রাজা হয়ে শাসন করবে। তাদের কোনো ভ্রাতা উৎপীড়ন করবে না, তারা আমার দ্বারা মার্জিত বা শাসিতও হবে না, কারণ আমি এই নীতি অনুসারেই কাজ করি: প্রথমজাত পুত্রদের দলের মধ্যে যারা অপরের দ্বারা তাচ্ছিল্য এবং উৎপীড়নের শিকার, এবং যারা জীবনের উত্থান-পতনের সকল ক্লেশ সহন করেছে। (তাদের আমি অগ্রিমভাবেই মোকাবিলা করেছি, ভঙ্গ করেছি, এবং সম্পূর্ণও করে তুলেছি।) এই মানুষেরা, অগ্রিমভাবেই, তাদের প্রাপ্য আশীর্বাদসমূহ আমার সঙ্গে উপভোগ করেছে। আমি ধার্মিক, এবং কখনোই কারো প্রতি পক্ষপাতপূর্ণ নই।

পূর্ববর্তী: অধ্যায় ৭২

পরবর্তী: অধ্যায় ৭৪

প্রতিদিন আমাদের কাছে 24 ঘণ্টা বা 1440 মিনিট সময় থাকে। আপনি কি ঈশ্বরের সান্নিধ্য লাভের জন্য তাঁর বাক্য শিখতে 10 মিনিট সময় দিতে ইচ্ছুক? শিখতে আমাদের ফেলোশিপে যোগ দিন। কোন ফি লাগবে না।👇

সম্পর্কিত তথ্য

রাজ্যের যুগই হল বাক্যের যুগ

রাজ্যের যুগে, যে পদ্ধতিতে তিনি কাজ করেন তা পরিবর্তনের উদ্দেশ্যে, এবং সমগ্র যুগের কাজ সম্পাদন করার জন্য, ঈশ্বর নতুন যুগের সূচনা করতে বাক্যের...

পরিশিষ্ট ১: ঈশ্বরের আবির্ভাব এক নতুন যুগের সূচনা করেছে

ঈশ্বরের ছয় হাজার বছরের পরিচালনামূলক পরিকল্পনা শেষ হতে চলেছে, এবং যারা তাঁর আবির্ভাবের পথ চেয়ে আছে তাদের সকলের জন্য স্বর্গের দ্বার ইতিমধ্যেই...

সেটিংস

  • লেখা
  • থিমগুলি

ঘন রং

থিমগুলি

ফন্টগুলি

ফন্ট সাইজ

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

পৃষ্ঠার প্রস্থ

বিষয়বস্তু

অনুসন্ধান করুন

  • এই লেখাটি অনুসন্ধান করুন
  • এই বইটি অনুসন্ধান করুন

Messenger-এর মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন