অধ্যায় ১০

অমুক বা তমুক নিয়ে তোমার ভীত হওয়া উচিত নয়; তা তোমাকে যতই অসুবিধা বা বিপদের সম্মুখীন হতে হোক না কেন, তুমি আমার সম্মুক্ষে কোনো প্রতিবন্ধকতার দ্বারা বাধাপ্রাপ্ত না হয়ে দৃঢ় হয়ে থাকতে সক্ষম, যাতে আমার ইচ্ছা বাধাহীন ভাবে সাধিত হয়। এ-ই হল তোমার কর্তব্য; নতুবা তোমার উপর আমি আমার ক্রোধ বর্ষণ করব, এবং আমার হস্ত দ্বারাআমি…। তারপর তুমি অনন্ত মানসিক যন্ত্রণা ভোগ করবে। তোমাকে সব সহ্য করতেই হবে; আমার জন্য, তোমাদেরঅধিকারে যা কিছু রয়েছে সেই সকলকিছুই পরিত্যাগ করতে তোমাদের প্রস্তুত থাকতে হবে, এবং আমাকে অনুসরণের জন্য তোমার পক্ষে যাকিছু সম্ভব তা সকলই করতে হবে, এবং তোমার সকল কিছুকে ব্যয় করার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। এখনই হল সেই সময় যখন আমি তোমাকে পরীক্ষা করব: তুমি কি তোমার আনুগত্য আমাকে অর্পণ করবে? পথের শেষ পর্যন্ত তুমি কি আমাকে বিশ্বস্ত ভাবে অনুসরণ করতে পারবে? ভীত হয়ো না; আমার সমর্থন থাকলে, কে এই পথরোধ করবে? একথা মনে রেখো! ভুলে যেয়ো না! যা কিছু ঘটছে তা সবই আমার সুঅভিপ্রায়ে, এবং সকলকিছুই আমার পর্যবেক্ষণের অধীন। তুমি যা কিছু বলো এবং করো তাতে কি তুমি আমার বাক্যকে অনুসরণ করতে পারো? যখন তোমার অগ্নিপরীক্ষার সমর আসবে, তখন কি তুমি নতজানু হয়ে ডাকবে? নাকি তুমি আড়ষ্ট হয়ে পড়বে, সম্মুখে অগ্রসর হতে অক্ষম হয়ে পড়বে?

নিজের ভেতরে তোমাকে আমার সাহসের অধিকারী হতে হবে, এবং যে আত্মীয়পরিজনেরা বিশ্বাসী নয় তাদের মুখোমুখি হওয়ার সময় তোমাকে নীতিসমূহ মেনে চলতে হবে। তবে যাইহোক, আমার জন্যই, অন্ধকারের কোনো শক্তির কাছে তোমার নতিস্বীকার করলেএকেবারেই চলবেনা। নিখুঁত পথে চলার জন্য আমার প্রজ্ঞার উপর নির্ভরকরো; শয়তানের কোনো চক্রান্তকে নিয়ন্ত্রণ নিতে দিয়ো না। আমার সম্মুখে হৃদয় নিবেদনের জন্য তোমারসকলপ্রচেষ্টা উজাড় করে দাও, এবং আমি তোমায় স্বাচ্ছন্দ্য দেব এবং তোমায় সুখ ও শান্তি এনে দেব। অন্য মানুষদের সামনে কোনও কিছুহয়ে ওঠার চেষ্টা কোরো না; আমাকে পরিতৃপ্ত করাটা কি তোমাদের কাছে বেশি মূল্য ও গুরুত্ব বহন করে না? আমাকে পরিতৃপ্ত করার মাধ্যমে তুমি কি অধিকতর ভাবেচিরন্তন ও জীবনব্যাপী সুখশান্তিতে পরিপূর্ণ হয়ে উঠবে না? তোমার বর্তমান যন্ত্রণাভোগ এটাই নির্দেশ করে যে ভবিষ্যতে কী অপরিসীম আশীর্বাদ তুমি লাভ করবে; সেগুলি অনির্বচনীয়। যে আশীর্বাদ তুমি লাভ করবে তার মহত্ত্ব তুমি জানো না; তুমি স্বপ্নেও তা কল্পনা করতে পারো না। আজ তাবাস্তব হয়েছে; ভীষণ রকমের বাস্তব! তুমি কি দেখতে পাচ্ছযে তাআর বেশি দূরে নেই? এর প্রতিটি কণা আমার মধ্যে রয়েছে; সামনের পথ কত আলোকোজ্জ্বল! তোমার অশ্রু মুছে ফেলো, এবং যন্ত্রণা বা দুঃখ অনুভব কোরো নাআর। সকলকিছুই আমার হস্ত দ্বারা আয়োজিত, এবং আমার লক্ষ্য হল তোমাদেরকেশীঘ্র জয়ী করে তোলা এবং আমার পাশে মহিমায় স্থাপিত করা। যা কিছু তোমার সঙ্গে ঘটে, তোমাকে সেই অনুসারে কৃতজ্ঞতায় ও স্তুতিতে পূর্ণ হতে হবে; তাআমাকে গভীর পরিতৃপ্তি দেবে।

খ্রীষ্টের দিব্য জীবন ইতিমধ্যেই আবির্ভূত হয়েছে; তোমার ভীত হওয়ার মতো কিছুই নেই। শয়তানগণ রয়েছে আমাদের পদতলে, এবং তাদের সময় ফুরিয়ে এসেছে। জাগ্রত হও! উচ্ছৃঙ্খলতার জগৎ পরিত্যাগ করো, নিজেকে মৃত্যুর অতল থেকে মুক্ত করো! যাই ঘটুক না কেন আমার প্রতি বিশ্বস্ত থাকো, এবং সাহসের সঙ্গে অগ্রসর হও; আমিই তোমার শক্তির স্তম্ভ, তাই আমার উপর নির্ভর করো!

পূর্ববর্তী: অধ্যায় ৯

পরবর্তী: অধ্যায় ১২

প্রতিদিন আমাদের কাছে 24 ঘণ্টা বা 1440 মিনিট সময় থাকে। আপনি কি ঈশ্বরের সান্নিধ্য লাভের জন্য তাঁর বাক্য শিখতে 10 মিনিট সময় দিতে ইচ্ছুক? শিখতে আমাদের ফেলোশিপে যোগ দিন। কোন ফি লাগবে না।👇

সম্পর্কিত তথ্য

ঈশ্বর হলেন মানুষের জীবনের উৎস

ক্রন্দনরত অবস্থায় এই জগতে ভূমিষ্ঠ হবার সময় থেকেই তুমি তোমার কর্তব্য পালন করা শুরু করো। ঈশ্বরের পরিকল্পনা ও তাঁর নির্ধারিত নিয়তি অনুসারে...

শুধুমাত্র অন্তিম সময়ের খ্রীষ্ট মানুষকে অনন্ত জীবনের পথ দেখাতে পারেন

জীবনের গতিপথ কারও নিয়ন্ত্রণে থাকে না, বা এটি সহজে অর্জন করতে পারার মতো বিষয়ও নয়। কারণ জীবন কেবল ঈশ্বর প্রদত্ত, অর্থাৎ, শুধুমাত্র ঈশ্বর...

ঈশ্বরের সঙ্গে সহজ সম্পর্ক স্থাপন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ

যে পথে মানুষ ঈশ্বরকে বিশ্বাস করে, ভালোবাসে এবং ঈশ্বরের আস্থাভাজন হয়ে ওঠে, সেই পথটি হল নিজের হৃদয়ে ঈশ্বরের পরম শক্তিকে স্থান দিয়ে তাঁর...

সেটিংস

  • লেখা
  • থিমগুলি

ঘন রং

থিমগুলি

ফন্টগুলি

ফন্ট সাইজ

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

লাইনের মধ্যে ব্যবধান

পৃষ্ঠার প্রস্থ

বিষয়বস্তু

অনুসন্ধান করুন

  • এই লেখাটি অনুসন্ধান করুন
  • এই বইটি অনুসন্ধান করুন

Messenger-এর মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন