ঈশ্বরের প্রতিদিনের বাক্য: জীবনে প্রবেশ | উদ্ধৃতি 466

তোমাদের বিশ্বাস অত্যন্ত আন্তরিক হলেও তোমাদের মধ্যে কেউই আমার সম্পূর্ণ বিবরণ দিতে পারবে না, কেউই তোমাদের দেখা সমস্ত তথ্যের সম্পূর্ণ সাক্ষ্য দিতে পারবে না। এই বিষয়ে চিন্তা করো: বর্তমানে তোমাদের বেশীরভাগই নিজেদের দায়িত্ব অবহেলা করো, পরিবর্তে তোমরা দৈহিক সুখের অনুসরণ করছ, দেহকে তৃপ্ত করছ আর লোভাতুর ভাবে দেহ উপভোগ করছ। তোমরা সামান্য সত্যের অধিকারী। তাহলে তোমরা কীভাবে তোমাদের দেখা সমস্ত কিছুর সাক্ষ্য দেবে? তোমরা কি সত্যিই আত্মবিশ্বাসী যে তোমরা আমার সাক্ষী হতে পারবে? যদি এমন এক দিন আসে যেদিন তুমি বর্তমানে দেখা সমস্ত কিছুর সাক্ষ্য দিতে অক্ষম, সেদিন তুমি সৃষ্ট সত্তা হিসাবে তোমার কার্যকারিতা হারিয়ে ফেলবে এবং তোমার অস্তিত্বের কোনও অর্থই থাকবে না। মানুষ হওয়ার অযোগ্য হয়ে যাবে তুমি। এটাও বলা যায় যে তুমি আর মানুষই থাকবে না! আমি তোমাদের ওপর অপরিমেয় কাজ করেছি, কিন্তু যেহেতু বর্তমানে তুমি কিছুই শিখছ না, কোনও কিছুর বিষয়েই সচেতন নও এবং কাজের বেলা অকার্যকর, তাই যখন আমার কাজ প্রসারের সময় আসে, তখন তুমি কেবল শূন্য দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকো, নিঃশব্দে এবং একেবারে অপদার্থের মতো। এটি কি তোমাকে সর্বকালের জন্য পাপী করে তুলবে না? যখন সেই সময় আসবে, তুমি কি গভীরতম অনুশোচনায় ভুগবে না? হতাশায় ডুবে যাবে না? আমার বর্তমানের সমস্ত কাজ আলস্য এবং একঘেয়েমি থেকে করা নয়, বরং তা করা হয় আমার ভবিষ্যতের কাজের ভিত্তি স্থাপন করার জন্য। এমন নয় যে আমি অচলাবস্থায় আছি এবং নতুন কিছু আমাকে নিয়ে আসতে হবে। আমি যে কাজ করি তা তোমাকে বুঝতে হবে; এটা কোনো শিশুর রাস্তায় খেলতে খেলতে করা কাজ নয়, বরং আমার পিতার প্রতিনিধিত্বে করা একটি কাজ। তোমাদের জানা উচিত যে আমি নিজে এই সব করছি না; বরং, আমি আমার পিতার প্রতিনিধিত্ব করি। এদিকে তোমাদের ভূমিকা হল কঠোরভাবে অনুসরণ করা, মান্য করা, পরিবর্তিত হওয়া, এবং সাক্ষ্য দেওয়া। কেন তোমাদের আমার ওপর বিশ্বাস করা উচিত তা তোমাদের বোঝা উচিত; এটি তোমাদের প্রত্যেকের বোঝার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। আমার পিতা, তাঁর গৌরবের স্বার্থে, বিশ্বসৃষ্টির মুহূর্ত থেকে তোমাদের সকলকে আমার জন্য পূর্বনির্ধারিত করেছেন। তিনি যে তোমাদের পূর্বনির্ধারিত করেছেন তা ছিল আমার কাজ এবং তাঁর মহিমার জন্য। আমার পিতার কারণেই তোমরা আমার ওপর বিশ্বাস করো; তাঁর পূর্বনির্ধারণের কারণেই তোমরা আমাকে অনুসরণ করো। এগুলির কোনোটাই তোমাদের নিজের পছন্দ নয়। আরও গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল তোমাদের এই বিষয়টা বোঝা, যে আমার কাছে সাক্ষ্য দেওয়ার উদ্দেশ্যে আমার পিতা আমার কাছে তোমাদের অর্পণ করেছেন। যেহেতু তিনি তোমাদের আমার কাছে প্রদান করেছেন, তাই আমি তোমাদের যে পথগুলি অর্পণ করেছি, সেই সাথে আমি যে উপায় এবং বাক্যগুলি শিখিয়েছি তা তোমাদের মেনে চলা উচিত, কারণ আমার পথ মান্য করা তোমাদের কর্তব্য। এটাই আমার ওপর তোমাদের বিশ্বাসের আসল উদ্দেশ্য। অতএব, আমি তোমাদের বলছি: তোমরা হলে শুধুমাত্র সেই মানুষেরা, যাদের আমার পিতা আমার পথ মেনে চলার জন্য অর্পণ করেছেন। যাইহোক, তোমরা আমাকে শুধুমাত্র বিশ্বাস করো; তোমরা আমার আপন লোক নও কারণ তোমরা ইসরায়েলী পরিবারভুক্ত নও, বরং তোমরা হলে প্রাচীন সর্পের মতো। আমি তোমাদের শুধুমাত্র আমার জন্য সাক্ষ্য দিতে বলছি, কিন্তু বর্তমানে তোমাদের অবশ্যই আমার পথে চলতে হবে। এসবই ভবিষ্যতের সাক্ষ্যের স্বার্থে। যদি তোমরা কেবলমাত্র আমার পথের কথা শোনা মানুষদের মতো কাজ করো, তাহলে তোমাদের কোনও মূল্যই থাকবে না এবং আমার পিতার তোমাদেরকে আমার কাছে অর্পণ করার তাৎপর্যই হারিয়ে যাবে। আমি তোমাদের যা জোর দিয়ে বলছি তা হল: তোমাদের আমার পথে চলা উচিত।

—বাক্য, খণ্ড ১, ঈশ্বরের আবির্ভাব ও তাঁর কার্য, ঈশ্বরের বিষয়ে তোমার উপলব্ধি কী?

প্রতিদিন আমাদের কাছে 24 ঘণ্টা বা 1440 মিনিট সময় থাকে। আপনি কি ঈশ্বরের সান্নিধ্য লাভের জন্য তাঁর বাক্য শিখতে 10 মিনিট সময় দিতে ইচ্ছুক? শিখতে আমাদের ফেলোশিপে যোগ দিন। কোন ফি লাগবে না।👇

সম্পর্কিত তথ্য

ঈশ্বরের প্রতিদিনের বাক্য: ঈশ্বরের স্বভাব এবং তিনি কে ও তাঁর কী আছে | উদ্ধৃতি 259

ঈশ্বর এই জগত সৃষ্টি করেছেন, সেখানে এনেছেন মানুষ নামক এক জীব, যাদের মধ্যে তিনি প্রাণ সঞ্চার করেছেন। তারপর, মানুষ পিতামাতা ও আত্মীয়স্বজন লাভ...

ঈশ্বরের প্রতিদিনের বাক্য: জীবনে প্রবেশ | উদ্ধৃতি 537

তুমি যখন তোমার ভ্রষ্ট স্বভাব ত্যাগ করবে এবং স্বাভাবিক মানবতার জীবনযাপনে অভ্যস্ত হয়ে যাবে, কেবলমাত্র তখনই তুমি নিখুঁত হয়ে উঠবে। যদিও তুমি...

ঈশ্বরের প্রতিদিনের বাক্য: অন্তিম সময়ের বিচার | উদ্ধৃতি 79

বিচারের কাজটি ঈশ্বরের নিজস্ব, তাই স্বাভাবিকভাবেই এটি স্বয়ং ঈশ্বরের দ্বারাই সম্পন্ন হওয়া উচিত; তাঁর পরিবর্তে মানুষ তা করতে পারে না। যেহেতু...

ঈশ্বরের প্রতিদিনের বাক্য: ঈশ্বরের আবির্ভাব ও তাঁর কাজ | উদ্ধৃতি 72

তুমি আমেরিকান, ব্রিটিশ, বা অন্য যেকোনো দেশের নাগরিক হও না কেন, তোমাকে তোমার নিজের জাতীয়তার গণ্ডির বাইরে, স্বীয় সত্তার সীমানা অতিক্রম করে,...

Messenger-এর মাধ্যমে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন